নতুন ধরনের করোনাভাইরাস সম্পর্কে যা জানা গেছে

নতুন ধরনের করোনাভাইরাস সম্পর্কে যা জানা গেছে


মর্নিংসিলেট ডেস্ক :: করোনার প্রতিষেধক দেওয়া যখন পুরোদমে চলছে, তথনই  লন্ডনসহ দক্ষিণ ইংল্যান্ডে অতি দ্রুত ছড়িয়ে পড়ছে নতুন ধরনের করোনাভাইরাস। যার জেরে যুক্তরাজ্যে আবার শুরু হয়েছে লকডাউন। ইউরোপের অনেক দেশ যুক্তরাজ্যের সঙ্গে বিমান পরিষেবা বন্ধ করে দিয়েছে।

এই নতুন ধরনের করোনাভাইরাস কী রকম?

যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন জানিয়েছেন, নতুন ধরনের করোনাভাইরাস আগের তুলনায় ৭০ শতাংশ বেশি গতিতে ছড়ায়। যার জেরে দক্ষিণ ইংল্যান্ডে সম্প্রতি অতি দ্রুত গতিতে করোনা ছড়িয়েছে। তবে জনসন জানিয়েছেন, নতুন ধরনের করোনাভাইরাস আরো মারাত্মক কি না, তার জন্য আরো প্রবল অসুস্থতা হচ্ছে কি না, তা এখনো জানা যায়নি।

গত সপ্তাহে যুক্তরাজ্য বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থাকে (ডাব্লিউএইচও) এই ভাইরাস সম্পর্কে সতর্ক করে দিয়ে বলেছিল, তা খুব দ্রুত ছড়িয়ে পড়ছে। লন্ডনের নতুন যাঁরা করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন, তাঁদের ৬০ শতাংশই নতুন ভাইরাসের কবলে পড়েছেন। জনস্বাস্থ্য বিভাগ জানিয়েছে, রবিবার এই ভাইরাসে এক হাজার ১০০ জন আক্রান্ত হয়েছেন। এই ভাইরাস প্রথমে দক্ষিণ আফ্রিকায় দেখা গিয়েছিল।

এই ভাইরাসকে আটকাতে জনসন ঘোষণা করেছেন, লন্ডন এবং দক্ষিণপূর্ব ইংল্যান্ডে আগামী ৩০ জানুয়ারি পর্যন্ত লকডাউন থাকবে। গত শনিবার জনসন বলেছেন, ”যত দিন যাচ্ছে, ততই এই ভাইরাস সম্পর্কে আমরা বেশি করে জানছি। ভাইরাস যদি চরিত্র বদল করে আক্রমণ করে, তবে আমাদেরও আত্মরক্ষার চরিত্র বদল করতে হবে।”

স্বাস্থ্যমন্ত্রী ম্যাট হ্যানকক বলেছেন, যতক্ষণ পর্যন্ত মানুষকে ভ্যাকসিন দেওয়া যাচ্ছে না, ততক্ষণ পর্যন্ত এই নতুন ধরনের ভাইরাসকে আটকানো কঠিন। কারণ এই ভাইরাস অতি দ্রুত ছড়ায়। যুক্তরাজ্যে এখন করোনার প্রতিষেধক দেওয়া চলছে। এখন আশি বছরের বেশি বয়সীদের এই প্রতিষেধক দেওয়া হচ্ছে।
ভাইরাসের চরিত্র বদল করা নতুন নয়।

করোনাভাইরাসেরও বিভিন্ন প্রজাতি আছে। তবে এখনো পর্যন্ত সেই প্রজাতিগুলোর মধ্যে আর বেশি ক্ষতিকারক কিছু দেখা যায়নি। কিন্তু নতুন করোনাভাইরাসের ক্ষেত্রে দেখা যাচ্ছে, তা আগের তুলনায় অনেক বেশি ছোঁয়াচে এবং ভয়ঙ্করভাবে দ্রুত ছড়াচ্ছে।

গত মাসে দেখা গিয়েছিল, লাখ লাখ মিংক করোনাভাইরাসে আক্রান্ত। আবার স্পেনে একটি নতুন ধরনের করোনাভাইরাস পাওয়া গেছিল, যা ইউরোপের নানা দেশে ছড়িয়ে পড়ে। কিন্তু দুইটি ক্ষেত্রেই দেখা যায়, ওই ভাইরাস মূল করোনাভাইরাসের থেকে মারাত্মক নয়।

কিন্তু যুক্তরাজ্যে গত সপ্তাহে যে নতুন ধরনের করোনাভাইরাস পাওয়া গেছে, তা আগের থেকে অনেক দ্রুত ছড়াচ্ছে। তবে এই ভাইরাসে মানুষের অসুস্থতা আরো জটিল চেহারা নিচ্ছে কি না, তা এখনো স্পষ্ট নয়। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, করোনা এমনিতেই মারাত্মক। ফলে করোনা হলে তাতে জীবনের ঝুঁকি থাকে। সে জন্যই দ্রুত করোনা ছড়ালে তা আরো মারাত্মক হয়ে উঠতে বাধ্য।

মন্তব্য