বিদেশ ফেরতদের ঋণ দেবে প্রবাসী কল্যাণ ব্যাংক

বিদেশ ফেরতদের ঋণ দেবে প্রবাসী কল্যাণ ব্যাংক


করোনার কাজ হারিয়ে গত বছরের এপ্রিল থেকে সেপ্টেম্বর পর্যন্ত ৬ মাসে বিভিন্ন দেশ থেকে ফিরেছেন এক লাখ ১১ হাজার ১১১ শ্রমিক। বিদেশফেরত এ শ্রমিকদের সুরক্ষায় কেন্দ্রীয়ভাবে তথ্য সংরক্ষণের কাজ চলছে বলে জানিয়েছেন প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রী ইমরান আহমেদ। 

সোমবার (১৫ ফেব্রুয়ারি) রাজধানীর কাকরাইলে বি.এম.ই.টি ভবনে আয়োজিত এক সেমিনারে এ কথা জানান মন্ত্রী। বিভিন্ন দেশে থেকে ফেরত শ্রমিকদের সরকার ব্যাংক ঋণসহ সব ধরনের সহায়তা করতে প্রস্তুত বলেও জানান তিনি।  তিনি বলেন, বর্তমান সরকার করোনার আগে থেকেই প্রবাসীদের জন্য কাজ করছে। তাদের সুরক্ষায় সরকার বিভিন্ন পদক্ষেপ নিয়ে তাদের কর্মশক্তিতে রুপান্তরের চেষ্টা করছে।

কোনো বিদেশ ফেরত শ্রমিক যদি ব্যাংক ঋণ নিয়ে ব্যবসা শুরু করতে আগ্রহী হোন, সরকার প্রবাসী কল্যাণ ব্যাংক থেকে ঋণের ব্যবস্থা করে দেবে বলেও জানান মন্ত্রী।  এ সেমিনারে প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের সচিব ড. মুনিরুস সালেহীন জানান, শ্রমিকদের সব ধরনের তথ্য সংরক্ষণে উপজেলা পর্যায়েও কার্যক্রম পরিচালনা করা হবে। বিএমইটি ভবন ছাড়াও জেলা পর্যায়ে কর্মসংস্থান সেল, উপজেলা পর্যায়ে টিটিসিসহ প্রান্তিক সব পর্যায়ে এ কার্যক্রম চলমান থাকবে।

যাতে কোনো শ্রমিক যেন তথ্যহীন অবস্থায় বেকার জীবনযাপন না করে। আমরা তার দক্ষতা অনুযায়ী অন্যান্য দেশে বা অভ্যন্তরীণভাবে কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করবো। সেই লক্ষ্যেই কাজ করছে মন্ত্রণালয়। সেমিনারে উপস্থিত ছিলেন- বিএমইটি মহাপরিচালক মো. শামসুল আলম, ইউরোপীয় ইউনিয়ন প্রতিনিধি এইচ. ই. রেন্সজি তেরিক, বিএমইটি ও মন্ত্রণালয়ের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা ও রিটার্নিং মাইগ্রেন্টস ম্যানেজমেন্ট অব ইনফরমেশন সিস্টেমের প্রতিনিধিরা।

মন্তব্য